প্রচ্ছদ

মুসলমানদের কলিজার টুকরা মহানবী (স.)কে নিয়ে কটুক্তিকারীর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে গোলাপগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল

21 October 2019, 18:30

গোলাপগঞ্জের ডাক
ফটো পারভেজ আহমদ খাঁন

গোলাপগঞ্জ :: বরিশালের ভোলা জেলায় আল্লাহ ও মহানবী (স.)কে নিয়ে কটুক্তিকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি, তাওহীদি জনতার উপর পুলিশের হামলা ও নির্বিচারে মানুষ হত্যা প্রতিবাদে গোলাপগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল-প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বাদ আসর বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিস উপজেলা ও পৌর শাখার আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলা সদরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে চৌমুহনী জামে মসজিদ সম্মুখে প্রতিবাদ সভায় মিলিত হয়।

সোমবার (২২ অক্টোবর) গোলাপগঞ্জ উপজেলা দক্ষিণ শাখা সভাপতি এমাদ উদ্দিনের সভাপতিত্বে, উত্তর শাখা সভাপতি সালমান আহমদ ও পৌর সভাপতি শাহীনুল ইসলাম রাজুর যৌথ পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিসের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি পরিষদ সদস্য ও সিলেট পূর্বজেলা সভাপতি মুহাম্মদ জারির হুসাইন, ছাত্র মজলিস সিলেট পশ্চিম জেলা সাবেক সভাপতি মাওলানা আহমদ মাহফুজ আদনান, সিলেট পূর্ব জেলা সাবেক সেক্রেটারী নাঈম উদ্দিন তাপাদার, প্রশিক্ষণ ও মাদ্রাসা বিষয়ক সম্পাদক এম জাবের আহমদ, খেলাফত মজলিস গোলাপগঞ্জ উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুস সালাম।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র মজলিস সিলেট পূর্বজেলা বায়তুলমাল ও প্রচার সম্পাদক রুহুল আমীন, প্রকাশনা ও স্কুল কার্যক্রম সম্পাদক সাইফুর রহমান, খেলাফত মজলিস গোলাপগঞ্জ উপজেলা সহ সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুস সামাদ, মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, ছাত্র মজলিস গোলাপগঞ্জ উপজেলা দক্ষিণ শাখা সাবেক সভাপতি মুহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন, সাদিকুর রহমান, এইচ এম হাবিবুর রহমান, মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ, শাহিন আহমদ ফামান, ওলিউর রহমান, শিপার আহমদ, মাওলানা ইকবাল হুসাইন প্রমুখ।

বিক্ষোভ সভায় বক্তারা বলেন, বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে মহান আল্লাহ তা’য়ালা, মহানবী মুহাম্মদ (স.) ও ইসলামকে নিয়ে কটুক্তি করা হলে ঈমানী দায়িত্ব হিসেবে মুসলমান প্রতিবাদ জানাবেই। ৯২ ভাগ মুসলমানদের দেশে প্রতিবাদ জানালে বিক্ষুব্ধ জনতার উপর পুলিশ গুলি করার অধিকার পায় কোথায়! শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদী সমাবেশে পুলিশ দায়িত্বশীল ভূমিকা না রেখে নির্বিচারে তাওহীদি জনতার উপর হামলা ও হত্যা করে সাম্প্রদায়িক উস্কানি দিয়েছে। ্ এ ঘটনায় জড়িত পুলিশকে বিচারের আওতায় আনতে হবে। নিশ্চয়ই পুলিশের এই বর্বরোচিত হামলায় কোনো অশুভ শক্তির ইন্ধন রয়েছে। ভোলায় হিন্দু যুবকের ইসলাম অবমাননার ঘটনায় উলামায়ে ক্বেরাম ও প্রশাসনের সমন্বয়ে তদন্ত করে রহস্য উদঘাটন করা দরকার। পাশাপাশি এসব অপতৎপরতা ও ইন্ধনের সাথে জড়িতদেরকে খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক কঠোর শাস্তি দিতে হবে।

  •  
  •  

সর্বশেষ খবর