প্রচ্ছদ

মৌলভীবাজারে নারী চা শ্রমিক ধর্ষণের শিকার, ধর্ষক গ্রেপ্তার

28 November 2019, 19:38

গোলাপগঞ্জের ডাক

কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মদন মোহনপুর চা বাগান থেকে সাপ্তাহিক রেশন নিয়ে গারো টিলায় ঘরে ফেরার পথে গত বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের মদন মোহনপুর চা বাগানের এক খ্রিস্টান নারী চা শ্রমিক (৩০)। এসময় একই এলাকার শুক্কু গোমেজ (৩৫) এই নারী শ্রমিককে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে ১০ নং প্লান্টেশন এলাকার চা বাগানে ধর্ষণ করে ফেলে যায়। এ ঘটনার ৬ দিন পর বুধবার (২৭ নভেম্বর) কমলগঞ্জ থানায় ধর্ষিতার ভাশুর মিলন গোমেজ একটি মামলা করলে পুলিশ ধর্ষক শুক্কু গোমেজকে গ্রেপ্তার করে।

অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শুক্কু গোমেজ নিয়মিত ওই নারীকে উত্যক্ত করত। সে তাকে নানাভাবে কু-প্রস্তাব দিত। গত বৃহস্পতিবার নারী শ্রমিক চা বাগান অফিস থেকে সাপ্তাহিক রেশন নিয়ে গারো টিলায় ফেরার পথে সন্ধ্যায় রাস্তায় একা পেয়ে জোর পূর্ব ঝাপটে ধরে নিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে ধর্ষিতা নিজে বাড়ি ফিরে তার শশুরবাড়ির লোকজনকে ঘটনাটি জানালে এলাকাবাসী চা বাগান পঞ্চায়েত ও বাগান ব্যবস্থাপককে অবহিত করেছিলেন। ঘটনার রাতেই বিষয়টি থানা কর্তৃপক্ষকে মৌখিকভাবে অবহিত করে নির্যাতিতাকে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়েছিল। সেখান থেকে ধর্ষিতার মেডিক্যাল চেকআপের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। নির্যাতিতা এখনও মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গত বুধবার (২৭ নভেম্বর) রাতে ধর্ষিতার ভাশুর মিলন গোমেজ ধর্ষণ ঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় একটি মামলা করলে পুলিশ মদন মোহনপুর চা বাগানে তার বাড়ি থেকে থেকে ধর্ষক শুক্কু গোমেজকে গ্রেপ্তার করেছে।

কমলগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুদীন চন্দ্র দাশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ধর্ষককে মৌলভীবাজার আদালতে প্রেরণ করা হয়।

  •  
  •  

সর্বশেষ খবর